শিশুর সলিড শুরু করতে ফলো করুন 3 day rules

শিশুর সলিড শুরু করতে ফলো করুন 3 day rules

শিশুর হয়েছে ৬ মাস। তাই নিয়ে নতুন মা থাকে অনেক উত্তেজিত। কিন্তুু বুঝতে পারছেন না কি দিয়ে শুরু করবেন? তাহলে আসুন জেনে নেই কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। আশা করি এই আর্টেকেল আপনাকে সঠিক নির্দেশনা দিতে সাহায্য করবে। শিশুর ফার্স্ট সলিড খাবার নিয়ে বিভিন্ন মতবাদ আছে। কিন্তু আমি মনে করি শিশুর জন্য কী ভাল সেই সিদ্ধান্ত মা নিজেই সবচেয়ে ভালো ভাবে নিতে পারে।
সলিড শুরু করার রুলস ঃ
3 day rule: শিশুর খাবারে কোন এলার্জিক রিয়েকশন হচ্ছে কিনা সেটা বুঝার সবচেয়ে কার্যকরী নিয়ম হচ্ছে 3 day rule ফলো করা। তাই,
→প্রথম দিন ১ টেবিল চামচ দিয়ে শুরু করুন দিনে একবার।
→২য় দিন ২ টেবিল চামচ করে দুই বেলা দিন।
→৩য় দিন ৩ টেবিল চামচ করে দুই বেলা দিন।
১ টেবিল চামচ সাধারণত ১৫ মি লি করে হয়ে থাকে। তাই ৩ দিন শেষ হয়ে আসলে সেটা ৯০ মি লি হয়ে যাবে।
###তবে এখন নতুন রিসার্চে অনেকে পেডিয়েট্রিশিয়ান 3 day rule ফলো করতে বলেন না। তারা বলে থাকেন পারিবারিক যদি কোন এলার্জির ইতিহাস না থাকে তাহলে শিশুকে সব খাবারই দেয়া যাবে। এতে করে শিশু সব ধরনের খাবারে অভ্যস্ত হয়ে উঠবে। তবে,
– প্রতিনিয়ত খেয়াল রাখতে হবে নতুন খাবারে কোন ধরনের এলার্জি কিংবা পেটের সমস্যা হচ্ছে কিনা এবং হলে সাথে সাথে সেই খাবার দেয়া বন্ধ করতে হবে। এবং সেই খাবার তাকে ৪-৬ সপ্তাহ পর আবার দিতে হবে।
– এলার্জিজনিত খাবার যেমন বিভিন্ন বাদাম শুরুতে খুবই অল্প পরিমানে খাবারের সাথে মিক্স করে দিয়ে দেখতে হবে। ধিরে ধিরে পরিমান বাড়াতে হবে। তবে ১০ মাসের পর থেকে বাদাম দেয়া ভালো।
– খাবার অবশ্যই সহনশীল পর্যায়ে গরম দিতে হবে।
– শিশুর খাবারের বাটি, চামচ, ফিডার সব ভালো ভাবে sterilize করে নিতে হবে। এবং শিশুর পাতিল, ব্লেন্ডার সব আলাদা রাখতে হবে।
– শিশুর যখন ভালো মুডে থাকবে তখন তাকে খাবার দিতে হবে।
– শিশুকে ফিডারে না দিয়ে বাটি চামুচে সলিড খাবার দিতে হবে।
– শিশুকে একদিনে দুইটি নতুন খাবার দেয়া যাবে না। তাহলে কোন খাবারে এলার্জি হচ্ছে সেটা বুঝা যাবে না।তাই এক খাবার দেয়ার ৩ দিন পর নতুন খাবার দিতে হবে।
– শিশুর খাবারে কোন চিনি, লবন দেয়া যাবে না।

১ম সপ্তাহ ঃ
√ ১ম দিনঃ ১ টেবিল চামচ আপেল পিউরি ১ বেলা। (চাইলে ব্রেস্ট মিল্ক অথবা ফর্মুলা মিল্ক মিশাতে পারেন।
√২য় দিনঃ ২ টেবিল চামচ আপেল পিউরি ২ বেলা।
√৩য় দিনঃ ৩ টেবিল চামচ আপেল পিউরি ২ বেলা।
√৪র্থ দিনঃ ১ টেবিল চামচ গাজরের পিউরি ১ বেলা।
√৫ম দিনঃ ২ টেবিল চামচ গাজরের পিউরি ২ বেলা।
√৬স্ট দিনঃ ৩ টেবিল চামচ গাজরের পিউরি ২ বেলা।
√ ৭ম দিনঃ সকালে আপেল পিউরি এবং বিকালে গাজরের পিউরি।

২য় সপ্তাহ ঃ
√ ১ম দিনঃ ১ টেবিল চামচ রাইস সুজি ১ বেলা।
√২য় দিনঃ ২ টেবিল চামচ রাইস সুজি সকালে এবং বিকালে আপেল অথবা গাজরের পিউরি। (অথবা আগে ট্রাই করা কোন খাবার)
√৩য় দিনঃ ৩ টেবিল চামচ রাইস সুজি সকালে এবং বিকালে আপেল অথবা গাজরের পিউরি। (অথবা আগে ট্রাই করা কোন খাবার)
√৪র্থ দিনঃ ১ টেবিল চামচ পেপের পিউরি এবং বিকালে আপেল অথবা গাজরের পিউরি। (অথবা আগে ট্রাই করা কোন খাবার)
√৫ম দিনঃ ২ টেবিল চামচ পেপের পিউরি এবং বিকালে আপেল অথবা গাজরের পিউরি। (অথবা আগে ট্রাই করা কোন খাবার)
√৬স্ট দিনঃ ৩ টেবিল চামচ পেপের পিউরি এবং বিকালে আপেল অথবা গাজরের পিউরি। (অথবা আগে ট্রাই করা কোন খাবার)
√ ৭ম দিনঃ যেকোনো কম্বিনেশন খাবার যা আগে দেয়া হয়েছে।

৩য় সপ্তাহঃ
ধিরে ধিরে রাইস সুজির সাথে চাইলে যেকোনো একটি ফল কিংবা একটি সবজি যা আগে দেয়া হয়েছে সেগুলো এড করে দিতে পারেন।
যেমন, ১ম-৩য় দিনঃ রাইস সুজি+গাজর অথবা রাইস সুজি+আপেল অথবা রাইস সুজি+পেপে।
৪র্থ-৬স্ট দিনঃ রাইস সুজি+গাজর+পেপে অথবা রাইস সুজি+আপেল+কলা দিতে পারেন।
৭ম দিনঃ চাল ডাল মিক্স খিচুড়ি দিতে পারেন।
তবে কোন ভাবেই কয়েক রকম ডাল মিক্স করা যাবে না।

এভাবে শিশুকে যেকোনো কম্বিনেশন ফুড দিতে পারেন। এবং নতুন কোন খাবার দিতে চাইলে 3 day rule ফলো করে দিতে পারেন। আমাদের ফার্স্ট সলিড গুলো single grain দিয়ে তৈরি। এর সাথে উপরের নিয়মে বিভিন্ন ফল কিংবা সবজি মিশিয়ে দিতে পারেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Share the Post:

Related Posts

তৈলাক্ত ত্বক

প্রতিদিনের খাদ্য তালিকার কিছু খাবার গোপনে আপনার ত্বককে করছে তৈলাক্ত। জেনে নিন কি খাবেন কি খাবেন না। OILY SKIN DIET

আপনি তাই যা আপনি খাচ্ছেন। আপনি যে খাবার খান তা আপনার ত্বকের অবস্থা, বিশেষ করে তৈলাক্ত ত্বকের উপর ব্যাপক প্রভাব

Read More
error: Content is protected !!
X
Change